সিসটেক পাবলিকেশন্স লিঃ এ স্বাগতম!   লগইন   নিবন্ধন
সিসটেক পাবলিকেশন্স লিঃ এ স্বাগতম!
এমএস অফিস ২০১৩

বিদ্যমান অপশনসমূহ

-     +
এড টু কার্ট

মাহবুবুর রহমান

মূল্যঃ ৳২১০ (৩০% ছাড়)

মূল্য ৳৩০০

বিস্তারিত

‘মাইক্রোসফট অফিস ২০১৩’ হলো মাইক্রোসফট উইন্ডোজের একটি প্রোডাক্টিভিটি স্যুট এবং ‘মাইক্রোসফট অফিস ২০১০’ এর উন্নততর সংস্করণ। এতে বর্ধিত ফাইল ফরমেটের সমর্থন, উন্নত উইজার ইন্টারফেস এবং টাচ এর সাপোর্ট যুক্ত করা হয়েছে যা ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতাকে আরও সমৃদ্ধ করবে। এর ৩২ বিট সংস্করণটি উইন্ডোজ সেভেন, উইন্ডোজ সার্ভার ২০০৮ আর২ বা এর পরবর্তী অপারেটিং সিস্টেমে চলে। এর ৬৪ বিটের সংস্করণও রয়েছে। এছাড়া উইন্ডোজ আরটি ডিভাইসগুলোতেও উইন্ডোজ ২০১৩ এর একটি সংস্করণ রয়েছে।

অফিস ২০১৩ তার আগের ভার্সনগুলোর চাইতে অনেক বেশি ‘ক্লাউড-ভিত্তিক’। এর ডিফল্ট সেভ লোকেশন হলো ব্যবহারকারীর স্কাইড্রাইভ যা নজরে পড়ার মতো। এছাড়াও মাইক্রোসফট তার অফিস ২০১৩ ভার্সনটিকে ‘অফিস ৩৬৫’ সাবস্ক্রিপশনের মাধ্যমেও বাজারে এনেছে যা স্ট্যান্ডার্ড রিটেইল ভার্সনগুলোর একটি বিকল্প প্রাইসিং মডেল।

মাইক্রোসফট অফিস ২০১৩ এর অন্যান্য ফিচারগুলোর মধ্যে রয়েছেঃ

  • আগের চাইতে আরো সুন্দররূপে উপস্থাপিত রিবন ইন্টারফেস এবং টাইপ ও সিলেক্ট করার সময় (ওয়ার্ড ও এক্সেল) সূক্ষ্ম অ্যানিমেশন
  • মাইক্রোসফট আউটলুকে শিডিউলড টাস্কসমূহের জন্য একটি নতুন ভিজ্যুয়ালাইজেশন
  • পূর্ণমডেলকৃত স্টার্ট স্ক্রিন
  • ওয়ার্ডের ভেতর নতুন গ্রাফিক্যাল অপশনসমূহ
  • ইমেজের মতো অবজেক্টসমূহকে মুক্তভাবে সরানো যায়; এগুলো বাউন্ডারিগুলোতে স্ন্যাপ হয় যেমন- প্রারাগ্রাফের প্রান্তসমূহ, ডকুমেন্ট মার্জিন এবং কলাম মার্জিনগুলোতে
  • Office.com, Bing.com এবং Flick হতে কনটেন্টসহ অনলাইন পিকচার সাপোর্ট (বাই ডিফল্ট, পাবলিক ডোমেইনে কেবল ইমেজসমূহ)
  • ওয়ার্ড এবং পাওয়ারপয়েন্টে সর্বশেষ দেখা বা সম্পাদন করা লোকেশনে প্রত্যাবর্তনের ক্ষমতা
  • পাওয়ারপয়েন্ট ২০১৩ তে নতুন স্লাইড ডিজাইন, অ্যানিমেশন ও ট্রানজিশনসমূহ
  • আউটলুকে Outlook.com ও Hotmail.com এর সমর্থন
  • Skype ও Yammer সমর্থন
  • এক্সেল ২০১৩ নতুন লিমিট মডেলসমূহকে সাপোর্ট করে

আর এসব বিষয়গুলো নিয়ে অত্যন্ত সহজবোধ্য ও হাতে কলমে শেখানোর মতো করে বইটি রচিত হয়েছে।

সাম্প্রতিক বিষয়সমূহ
বইসমূহ
সাইন আপ করার মাধ্যমে আমাদের সংবাদ ও প্রচার সম্পর্কিত বিষয়গুলোর সাথে হালনাগাদ থাকুন।

প্রযুক্তি আলো

বর্তমানে আমাদের দেশে একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণিতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়টি আবশ্যিক হওয়াতে এই বিষয়টি নিয়ে অনেকেরই ব্যাপক আগ্রহের পাশাপাশি নতুন অনেক বিষয় যেমন- এইচটিএমএল এবং সি প্রোগ্রামিং নিয়ে উদ্বিগ্ন হতে দেখা গেছে। অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ল্যাবে পর্যাপ্ত কমপিউটার না থাকায় শিক্ষার্থীরা হাতে-কলেমে শিখতে পারছেনা। সরাসরি হাতে-কলমে শিখতে পারলে ভালোভাবে বিষয়টি বুঝার পাশাপাশি তারা ভবিষ্যতে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এবং প্রোগ্রামিং এর প্রতি আগ্রহী হতো। ‘প্রযুক্তি ছড়িয়ে যাক সবখানে’- এ শ্লোগান নিয়ে কার্যক্রম শুরু করেছে প্রযুক্তি আলো। বিভিন্ন পাবলিক এবং প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের শেষ বর্ষের তরুণ শিক্ষার্থীরা সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতা হিসাবে ভলেন্টারি মানসিকতা নিয়ে প্রযুক্তি আলোর সদস্য হিসাবে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের শিক্ষার্থীদেরকে হাতে-কলেমে শিক্ষা দেয়ার উদ্যোগের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেছে। তাদেরকে নিয়ে একটি টীম গঠন করা হয়েছে।

“কমপিউটারের মতো সর্বাধুনিক প্রযুক্তিকে মাতৃভাষায় সহজভাবে উপস্থাপনের অঙ্গীকার নিয়ে ১৯৯৫ সালের ১ জানুয়ারি প্রকাশনায় খ্যাত ঢাকার বাংলাবাজারে আত্মপ্রকাশ ঘটে সিসটেক পাবলিকেশন্স লিঃ এর। সিসটেক এর সাথে সম্পৃক্ত কমপিউটার ইঞ্জিনিয়ার, বিশেষজ্ঞ ও দক্ষ প্রশিক্ষক ছাড়াও কমপিউটারের উপর স্বনামধন্য লেখকদের বই প্রকাশে সিসটেক পাবলিকেশন্স লিঃ সদা সচেষ্ট। সিসটেক থেকে প্রকাশিত বইসমূহ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ক্ষেত্রে ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ও পাশ্ববর্তী দেশ ভারতের বাংলা ভাষাভাষীদের মাঝে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করতে সমর্থ হয়েছে।”
কপিরাইট © ১৯৯৫-২০১৭ | সিসটেক পাবলিকেশন্স লিমিটেড কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত